ব্রেকিং নিউজ

কালো টাকা সাদার সুযোগ নির্বাচনী ইশতেহার পরিপন্থী-সিপিডি


১১ জুন, ২০১৯ ৬:১৬ : অপরাহ্ণ

ঢাকা: গত দশ বছরের মধ্যে দেশের অর্থনীতি সবচেয়ে চাপে রয়েছে বলে মনে করছে বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ- সিপিডি।আসছে বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া হলে, তা বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার পরিপন্থী হবে বলেও জানিয়েছে সিপিডি।

মঙ্গলবার ( ১১ জুন) দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে  ‘দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ও বাজেটের চ্যালেঞ্জ’ বিষয়ে আলোচনা সভায় সংস্থার পক্ষ থেকে এই অভিমত তুলে ধরেন সিপিডির সম্মানিত ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য।

সে সময় তিনি বলেন, গত এক দশকে দেশের অগ্রগতি একটি সীমান্ত রেখায় উপনীত হয়েছে। তবে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পৌঁছাতে হলে প্রবৃদ্ধি এবং মাথাপিছু আয় বাড়াতে হবে। ব্যক্তি বিনিয়োগ, সামাজিক ও শিল্পায়নের সঙ্গে সামাঞ্জস্য নেই। কর আহরণের অপারগতা অন্যতম কারণ। এর ফলে উন্নয়ন কর্মসূচি ব্যাহত হচ্ছে। অর্ধেক এডিপি তিন মাসে বাস্তবায়ন করতে হবে। রপ্তানি এবং রেমিটেন্স ভালো থাকা সত্তেও বৈদেশিক লেনদেনের ঘাটতি বাড়ছে। বৈদেশিক মজুদ দ্রুত কমছে।

সিপিডির সম্মানিত ফেলো বলেন, ব্যাংকিং খাতের সংকট সমাধানে সরকারের নেয়া পদক্ষেপ কার্যকর ভূমিকা রাখছে না। সুদের হার নিয়ে নাড়াচাড়া করে ব্যাংকিং সামগ্রিক সমস্যা সমাধান হবে না। সুশাসনের ব্যবস্থা করতে হবে। দুর্নীতিতে জড়িতদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে। অন্যথায় ব্যাংকিং খাতে অনস্থা তৈরি হবে।

ড. দেবপ্রিয় বলেন, এ বছর ধানের দাম নিয়ে বেশ ক্ষতির মুখে পড়েছে প্রান্তিক কৃষকরা। ন্যায্য দাম না পাওয়ায়- ক্ষেতে আগুন দেওয়াসহ দেশের বিভিন্নস্থানে বিক্ষোভও করেছে তারা। কৃষকের প্রবৃদ্ধি গ্রাম থেকে শহরে, শহর থেকে বিদেশে চলে গেছে। এক ধরনের অর্থনৈতিক অব্যবস্থাপনার এমন প্রকট চিত্র কোনো খাতেই বোধহয় এমনভাবে নেই, যতখানি কৃষকের সঙ্গে করা হয়েছে। কৃষক অবশ্যই একটা আর্থিক ভর্তুকির দাবি করতে পারে বাংলাদেশ সরকারের কাছে। এক কোটি ৮০ লাখ কার্ডধারী কৃষক আছে। তাঁদের কাছে পাঁচ হাজার টাকা করে ভর্তুকি দেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

আর করিম চৌধুরী/এস জি নবী

ট্যাগ :

আরো সংবাদ