ব্রেকিং নিউজ

২০১৯-২০ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট পেশ আজ


১৩ জুন, ২০১৯ ৯:৩২ : পূর্বাহ্ণ

ঢাকা: আজ বৃহস্পতিবার জাতীয সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট পেশ করা হবে । বর্তমান অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের এটাই প্রথম বাজেট।বিকাল ৩টায় শুরু হবে বাজেট পেশের আনুষ্ঠানিকতা। এর আগে দুপুরে সংসদে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বিশেষ বৈঠকে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট অনুমোদন দেয়া হবে।

এ বাজেটে চালু হচ্ছে নতুন ভ্যাট আইন। সেইসঙ্গে কয়েকটি খাতে বাড়তি প্রণোদনা এবং ছোট বড় নানা সংস্কার থাকার কথাও শোনা যাচ্ছে।

বাজেটের উন্নয়ন খরচ চূড়ান্ত হয়েছে দুই লাখ কোটির বেশি। যার ওপর ভর করে, রাজস্ব আহরণের লক্ষ্য নির্ধারিত হয়েছে পৌনে চার লাখ কোটি টাকা। এর মধ্যে এনবিআরকেই আদায় করতে হচ্ছে সোয়া তিন লাখ কোটি।নতুন বাজেটে ঘাটতি দাঁড়াচ্ছে প্রায় দেড় লাখ কোটি।

এবারের বাজেটের সম্ভাব্য আকার ধরা হয়েছে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরের মূল বাজেটের চেয়ে আগামী বাজেট ১২ দশমিক ৬১ শতাংশ ও সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ১৮ দশমিক ২২ শতাংশ বড়।

প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব আহরণের সম্ভাব্য লক্ষ্যমাত্রা ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা, যা জিডিপির ১৩ দশমিক ১ শতাংশ। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) নিয়ন্ত্রিত কর ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকা, এনবিআর-বহির্ভূত কর ১৪ হাজার ৫০০ কোটি,কর ব্যতীত প্রাপ্তি ৩৭ হাজার ৭১০ কোটি এবং বৈদেশিক অনুদানের পরিমাণ ধরা হচ্ছে ৪ হাজার ১৬৮ কোটি টাকা।

প্রস্তাবিত বাজেটের পরিচালন ব্যয় ধরা হচ্ছে ৩ লাখ ১০ হাজার ২৬২ কোটি টাকা। উন্নয়ন ব্যয় ধরা হচ্ছে ২ লাখ ১১ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা।

আসন্ন বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হচ্ছে ৮ দশমিক ২ শতাংশ। এছাড়া নতুন বাজেটে মূল্যস্ফীতির চাপ ৫ দশমিক ৫ শতাংশে রাখার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

প্রস্তাবিত বাজেটের বিষয়ে অর্থ মন্ত্রনালয় বলেছে, রাজস্ব আদায়ে করের হার না বাড়িয়ে বরং করের আওতা বাড়িয়ে রাজস্ব আদায় বাড়ানো হবে। সঙ্গে এবারের বাজেটে রাজস্ব আদায়ের প্রক্রিয়া সহজ করতে এনবিআরের জন্য নতুন করে দিকনির্দেশনা থাকবে। ভ্যাট আইন কার্যকর করার বিষয়ে দিকনির্দেশনা থাকবে এবারের বাজেটে। সাধারণ আরোচনা শেষে আগামী ৩০ জুন জাতীয় সংসদে এ বাজেট পাস হওয়ার কথা রয়েছে।

সূত্র-বাসস

আর করিম চৌধুরী/এস জি নবী

ট্যাগ :

আরো সংবাদ