রেডিও শুনে কোরআনে হাফেজ হলো জন্মান্ধ শিশুটি


২৯ জুন, ২০১৯ ১:৫৫ : অপরাহ্ণ

হোসেন মুহাম্মদ তাহিরের জন্ম মিয়ানমারে যেখানে মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর চলে নির্যাতন। জন্ম থেকে অন্ধ তাহির। তার বাবা সৌদি আরবের জেদ্দায় থাকেন। ছেলেকে নিজের কাছে নিয়ে যান। সেখানেই রেডিও শুনতে শুনে পুরা কোরআন শুনে মুখস্ত করে ফেলেন ৫ বছরের শিশু তাহির।

বাবা চিন্তাও করেননি, তার ছেলে এভাবে রেডিও শুনে শুনে হাফেজ হয়ে যাবে। ছেলে অন্ধ হওয়ায় তার মনে যে দু:খবোধ ছিল তা এখন অনেকটাই নেই। বিশ্ব মিডিয়ায় এখন খবর হচ্ছে তার দৃষ্টিহীন ছেলেকে নিয়ে।

ছেলেকে একটি রেডিও কিনে দেন বাবা। সেখানে একটি চ্যানেল ফিক্স করে দেন যেখানে ২৪ ঘন্টা কুরআন তেলাওয়াত প্রচার করা হয়। আর ওই রেডিও শুনে শুনেই পুরা কোরআন মুখস্ত করে ফেলে তাহির।

একবার বাবার সাথে তাহির মদিনায় যান। সেখানে মসজিদে নববীতে যাওয়ার জন্য আবদার করে সে। এসময় বাবা তাকে বলে, তুমি যদি সুরা বাকারা থেকে কয়েকটি আয়াত শুনাতে পারো তাহলে তোমাকে নিয়ে যাবো।

বাবা অনেকটা মজা করে বললেও বিষয়টি বেশ গুরুত্বসহকারে নেয় শিশু তাহির। সে মনযোগ দিয়ে শুনতে থাকে রেডিওতে প্রচার হওয়া তেলাওয়াত। বাবাকে কুরআনের সবচেয়ে বড় ও ২৮৬ আয়াতে পুরো সুরা বাকারা শুনিয়ে দেন।

বিষয়টি বুঝতে পেরে মুগ্ধ বাবা ছেলেকে নিয়ে ছুটে যান মদিনার কয়েক জন আলেম ও হাফেজের কাছে যান। তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেন যে, শিশু হোসেনের তেলাওয়াত যেমন শুদ্ধ তেমনি সে ধীরে ধীরে কুরআন হেফজ সম্পন্নে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

কিছু দিক-নির্দেশনা দেন ওই আলেম ও হাফেজরা। অল্প কিছু দিনের মধ্যেই সেসব দিক-নির্দেশনা অনুযায়ী পুরা কোরআন মুখস্থ করে শিশু হোসেন।

ছেলের জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন ওই বাবা।

বিএনএ/ এইচ.এম।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ