ব্রেকিং নিউজ

পালিত হচ্ছে আখতারুজ্জামান বাবুর মৃত্যুবার্ষিকী


৪ নভেম্বর, ২০১৯ ১:০৮ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম: মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, দলের চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার প্রাক্তন সভাপতি, সাবেক সংসদ সদস্য আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবুর ৭ম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হচ্ছে।

সোমবার (৪ নভেম্বর) সকাল থেকে আনোয়ারার হাইলধরে মরহুমের গ্রামের বাড়িতে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলো। এছাড়া খতমে কোরআন, মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মোনাজাতের আয়োজন করা হয়েছে। আনোয়ারা-কর্ণফুলী উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী-অঙ্গসংগঠনের উদ্যোগে আখতারুজ্জামান বাবুর কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ, শ্রদ্ধা নিবেদন, আলোচনা সভা ও বিভিন্ন কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি উপস্থিত থাকবেন।

আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু দীর্ঘ সময় ধরে দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ছাড়াও জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন চারবার। নবম জাতীয় সংসদে পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ছিলেন তিনি।
১৯৪৫ সালের ৩ মে চট্টগ্রামের আনোয়ারা থানায় হাইলধর গ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু। তাঁর পিতা আলহাজ্ব নুরুজ্জামান চৌধুরী। তিনি পেশায় একজন আইনজীবী ছিলেন। তাঁর মাতার নাম খোরশেদা বেগম। মরহুম বাবু আজীবন গরিব দুঃখী মানুষের পাশে থেকে তাদের ভাগ্যের উন্নয়নে কাজ করে গেছেন। তিনি ১৯৭০, ১৯৮৬, ১৯৯১, ও ২০০৮ সালে আনোয়ারা-কর্ণফুলী আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

তিনি চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক ও ২০১১ সালে প্রেসিডিয়াম সদস্য হয়েছিলেন। তিনি দীর্ঘকাল ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠনগুলোর নেতৃত্বে ছিলেন। আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু দু’বার চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি, এফবিসিসিআই’র প্রেসিডেন্ট এবং প্রশাসক, ওআইসিভূুক্ত দেশসমূহের চেম্বার প্রেসিডেন্ট ও ১৯৮৯ সালে ৭৭ জাতি গ্রুপের ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছিলেন। সর্বশেষ জাতীয় সংসদের পাট ও বস্ত্রবিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ছিলেন। তিনি চট্টগ্রামের উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে গেছেন। স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে তিনি কারারুদ্ধ হন। সাধারণ মানুষের কাছে আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু একজন দানবীর হিসেবে খ্যাত ছিলেন।

ব্যক্তি জীবনে তিনি ৩ পুত্র ও ৩ কন্যার জনক। বড় ছেলে সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি বর্তমানে আনোয়ারা-কর্ণফুলী আসনের সংসদ সদস্য ও ভূমিমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন। মেজ ছেলে আনিসুজ্জামান চৌধুরী রনি দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক এবং ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের (ইউসিবি) ইসি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। ছোট ছেলে আসিফুজ্জামান চৌধুরী জিমিও একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী।২০১২ সালে ৪ নভেম্বর ৭১ বছর বয়সে আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু বিদেশে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।

আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু’র মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ দুপুর ২টায় আন্দরকিল্লাস্থ সংগঠন কার্যালয়ে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল আয়োজন করেছে। বিকেল ৩টায় মরহুম আখতারুজ্জামান চৌধুরী বাবু’র কবর জিয়ারত ও কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ। কর্মসূচি সফল করার জন্য দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান অনুরোধ জানিয়েছে।

বিএনএনিউজ২৪.কম/ফয়সাল,এসজিএন, এহক।

Print Friendly and PDF

আরো সংবাদ

আর্কাইভ
November 2019
F S S M T W T
« Oct   Dec »
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031