ব্রেকিং নিউজ

চট্টগ্রাম নগরীতে কোন পার্কিং ব্যবস্থা নেই : চসিক মেয়র


৩ ডিসেম্বর, ২০১৯ ৯:৫৪ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, নিরাপদ সড়ক আইনে অবৈধভাবে পার্কিং করলে দিতে হবে ৫ হাজার টাকা জরিমানা। তবে চট্টগ্রাম নগরীতে পার্কিং এর কোনো ব্যবস্থা নেই। এখানে আমার কোনো এখতিয়ার নেই। কারণ এটা আগে থেকে অপরিকল্পিতভাবে ছিল। আর তার ফল আমরা এখন ভোগ করছি।

মঙ্গলবার ( ৩ ডিসেম্বর) নগরীর আন্দরকিল্লায় চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের পুরাতন ভবনের কেবি আব্দুচ ছাত্তার মিলনায়তনে দায়িত্ব গ্রহণের চার বছরের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরতে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

মেয়র নাছির বলেন, নিউ মার্কেট এলাকায় অনেক হকার বসে। তারা ক্রেতা পাচ্ছেন বলে বসছে। হকার নেতাদের সঙ্গে ১০০ ঘণ্টা সভা করেছি। তাদেরকে বার বার উচ্ছেদ করা হলেও আবার বসে যায়। অনেকে বলে সিটি করপোরেশন উচ্ছেদে যায় না, ম্যাজিস্ট্রেট মেনেজ হয়ে গেছে, সিটি করপোরেশন মেনেজ হয়ে  গেছে। কিন্তু সিটি করপোরেশনের একজন ম্যাজিস্ট্রেট আছে। আর ম্যাজিস্ট্রেট যেতে হলে পুলিশ লাগে। পুলিশ ছাড়া উচ্ছেদ করা যায় না। পুলিশের অভাবে আমাদের ম্যাজিস্ট্রেট সব সময় অভিযান চালাতে পারেন না। তাই উচ্ছেদ করতে যেতে পারে না, এজন্য সময় লাগে। এছাড়া বিভিন্ন বিষয়ে ৩৫০টি মামলা চলছে।

মেয়র বলেন, চট্টগ্রামকে গ্রিন সিটি,  ক্লিন সিটি করতে কাজ করে যাচ্ছি। আমরা নতুন নতুন প্রকল্প গ্রহণ করছি। যা বাস্তবায়ন হলে চট্টগ্রাম একটি আধুনিক শহরে পরিণত হবে। নগরীকে আলোকায়নের ব্যবস্থা করতে পোর্টকানেকটিং সড়ক, আরকান সড়ক, জিইসি থেকে একেখান সড়কে ৬৪ হাজার ৬৮৩টি এলইডি বাতি স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। শহরের এমন অনেক জায়গা আছে যেখানে অন্ধকারের কারণে আসা-যাওয়া সমস্যা হয়। আমাদের মা-বোনদেরও পথ চলতে সমস্যা হয়। তাই এই ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আর যেখানে আলোর সমস্যা ওখানে আগে আলোর ব্যবস্থা করা হবে।

তিনি বলেন,  কর প্রদানের বেলায় জনগণের গড়িমসি নিতান্ত হতাশাজনক। আমার আগে মঞ্জু ভাইয়ের( মেয়র মনজুরুল আলম) সময় চসিকের গৃহকর আয়ের হার ছিল ২৮ শতাংশ।  আমি এই হার ৩৮ শতাংশএ উন্নীত  করেছি নানা প্রচেষ্ঠার মাধ্যমে।

তিনি আরও বলেন, নগরবাসির পরিবহন সমস্যা দূর করতে এস আলম গ্রুপের মাধ্যমে ১০০ এসি বাস চালু করা হচ্ছে। জানুয়ারিতে নগরীর ৩ রুটে এসব বাস চালু হবে। আর যাত্রীদের চেনার সুবিধার্থে তিন রুটের জন্য তিন রঙ ব্যবহার করা হবে। এই সার্ভিস চালু হলে নগরীতে  গণপরিবহনের সংকট কাটে যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের  প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামশুদ্দোহা, প্রধান প্রকৌশলী লে. কর্নেল সোহেল আহমেদ, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ একেএম রেজাউল করিম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা সুমন বড়ুয়া ও মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম।

বিএনএনিউজ২৪.কম/এমএফ,এসজিএন

Print Friendly and PDF

আরো সংবাদ

আর্কাইভ
December 2019
F S S M T W T
« Nov    
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930