ব্রেকিং নিউজ

একতরফা নির্বাচনের চক্রান্ত চলছে-মির্জা ফখরুল


১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ৫:২৬ : অপরাহ্ণ

ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে ইভিএম পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ প্রক্রিয়ায় জনগণের রায়ের বাস্তব প্রতিফলন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।প্রশ্নবিদ্ধ কর্মকর্তাদের দিয়ে একতরফা নির্বাচনের চক্রান্ত চলছে  বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

মঙ্গলবার(১৪ জানুয়ারি) গুলশানে চেয়ারপার্সনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে গুম-খুন-নির্যাতনে ক্ষতিগ্রস্তদের সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল আরও বলেন,আধুনিক স্বৈরাচারীর নতুন কৌশল হলো পছন্দের লোক দিয়ে নির্বাচনের মাধ্যমে নিজেদের প্রার্থীকে জয়ী করে আনা। যার জ্বলজ্যান্ত প্রমাণ হলো বর্তমানের নৈতিকতাহীন নির্বাচন কমিশন এবং তাদের সৃষ্টি ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ।ইভিএম এ ভোটারদের প্রতিফলন না ঘটার মতো যথেষ্ট কৌশল এটাতে রয়েছে।নির্বাচন কমিশনে দুই একজন বাদে আর কারও লজ্জা শরম নেই। তাদের পদত্যাগ করা উচিত কিন্তু তারা করবে না। মানুষের যে লজ্জা থাকে সেটাও তাদের নেই।

তিনি দাবি করেন, আওয়ামী লীগ নির্যাতন, নিপীড়ন চালিয়ে বাংলাদেশের মানুষকে কোণঠাসা করে ফেলেছে।স্বাধীনতা যুদ্ধের পরে আওয়ামী লীগ দানবে পরিণত হয়েছে। ২০০৮ সালের পরে শুধু খোলসটা পাল্টে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য, সংবিধান সংশোধন করেছে। এরপর বাংলাদেশের মূল চেতনাকে ধ্বংস করে গণতন্ত্রকে কবর দিয়েছে তারা। তাদের শাসন ব্যবস্থাকে পাকাপোক্ত করতে রাষ্ট্রের সমস্ত যন্ত্রগুলোকে ব্যবহার করছে। এর মধ্যে যারা প্রতিবাদ করতে চেয়েছেন তাদের মধ্যে আজকে অনেকেই নেই। তাদের কাউকে হত্যা, গুম ও কারাগারে নিক্ষেপ করা হয়েছে। তারা গোটা জাতিকে একটা নির্যাতনের কারখানা তৈরি করে ফেলেছে।হতাশ না হয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, সরকার বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছে । তারা বর্তমান প্রজন্মের ভবিষ্যত নষ্ট করে দিচ্ছে। এমন একটা সমাজ তৈরি করা হয়েছে যে সমাজে এরা মানুষ হতে পারবে না। এটা সবচেয়ে বড় ক্রাইম। মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ করা হচ্ছে। বিএনপির  প্রায় ৩৬ লাখ নেতাকর্মী মামলার আসামি। ১ লাখের ওপরে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ৫শ এর চেয়ে বেশি গুমের ঘটনা ঘটেছে। থানায় নিয়ে গুলি করে মেরে ফেলা হয়েছে, পঙ্গু করে দেয়া হয়েছে। তাদের অপরাধ তারা গণতন্ত্র চায়। রাষ্ট্রের নির্যাতনে যুবক-তরুণ পঙ্গু হয়ে যাওয়ার জন্য স্বাধীনতাযুদ্ধ করেননি বলে জানান মির্জা ফখরুল।

বিএনএনিউজ২৪.কম/আর করিম চৌধুরী,এস জি নবী

 

Print Friendly and PDF

আরো সংবাদ

আর্কাইভ
January 2019
F S S M T W T
« Dec    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031