ব্রেকিং নিউজ

কোটিপতি পিএস!


১৪ জানুয়ারি, ২০২০ ১০:৫১ : অপরাহ্ণ

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে নূর উর রশীদ চৌধুরী ওরফে এজাজ চৌধুরীকে। তিনি সরকার দলীয় হুইপ ও পটিয়া আসনের সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিএস)। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অবৈধ জুয়া ও ক্যাসিনো ব্যবসা, তদবির, চাঁদাবাজি করে কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। জানা যায়, মঙ্গলবার (১৪ জানুয়ারি) এজাজকে তলবি নোটিশ পাঠায় দুদক।

এজাজ পটিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন।

অভিযোগে বলা হচ্ছে, শুধু চট্টগ্রামের ক্লাবগুলোতে চলা জুয়ার আসর থেকেই প্রতিদিন এজাজের আয় ছিল ৫০ হাজার টাকা।

দুদকের পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন জানান, আগামী ২১ জানুয়ারি রাজধানীর সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ে নূর উর রশীদ চৌধুরীকে হাজির হতে বলা হয়েছে।

দুদকের সূত্র জানায়, গত বছরের শুরুর দিকে সামশুল হক চৌধুরীর পিএস এজাজ চৌধুরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জমা পড়ে। অভিযোগ নম্বর ১৮১/২০১৯। এজাজের অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়টি অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত হয় গত নভেম্বরে। প্রথমে দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে চট্টগ্রাম অভিযোগ অনুসন্ধানের সিদ্ধান্ত হলেও পরে তা পরিবর্তন করা হয় সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের নির্দেশে। এজাজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের অনুসন্ধান করে দুদক প্রধান কার্যালয়।

শুরুতে সিদ্ধান্ত ছিল দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়, চট্টগ্রাম অভিযোগ অনুসন্ধান করবে। পরে সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদের নির্দেশে দুদক প্রধান কার্যালয় এজাজের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের অনুসন্ধান শুরু করে। অভিযোগের বিষয়ে জানতে সামশুল হক চৌধুরী ও এজাজ চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছে। তবে তাদের পাওয়া যায়নি।

দুদক সূত্র আরও জানায়, এজাজের পাশাপাশি তার বাবা আব্দুল মালেক, বড়ভাই সুলতান উর রশীদ চৌধুরী এবং স্ত্রী সুরাইয়া আক্তারের সম্পদেরও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। তাদের ব্যাংক হিসাবের তথ্য জানতে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এ বিষয়ে বিভিন্ন ব্যাংকে চিঠি দিয়ে তথ্য চেয়েছে। সূত্র জানায়, ভূমি অফিস, সাবরেজিস্ট্রি অফিস ও বিআরটিতেও খোঁজ নেওয়া হচ্ছে তার ব্যাপারে।

বিএনএনিউজ২৪.কম/এইচ.এম।

Print Friendly and PDF

আরো সংবাদ

আর্কাইভ
January 2019
F S S M T W T
« Dec    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
25262728293031